Tuesday, November 30, 2021
Home > ফিচার > কম্পিউটার হার্ডওয়্যারের বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান ‘টেকল্যান্ড’

কম্পিউটার হার্ডওয়্যারের বিশ্বস্ত প্রতিষ্ঠান ‘টেকল্যান্ড’

দেশজুড়ে নামে-বেনামে গড়ে উঠেছে অসংখ্য কম্পিউটার হার্ডওয়্যার বিক্রেতা প্রতিষ্ঠান। অনেকে বেনামী কিছু প্রতিষ্ঠানের দোরগোড়ায় গিয়ে ঠকছেনও। তবে দেশে কিছু সংখ্যক প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যারা সুনাম ও সততার সঙ্গে গ্রাহকদের কম্পিউটার হার্ডওয়্যার সেবা দিচ্ছেন। এর মধ্যে অন্যতম—টেকল্যান্ড।

রাজধানীর নিউ এলিফ্যান্ট রোডের কম্পিউটার সিটি সেন্টারে (মাল্টিপ্ল্যান) প্রতিষ্ঠানটির দুটি শাখা রয়েছে। রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে দেখা যায়, এর প্রত্যেকটি শাখাতেই ছিল নজরকাড়া ভিড়। আলাপ হয় প্রতিষ্ঠানটির সিইও মো. রাকিবুল হুদা মজুমদারের সঙ্গে। তিনি বলেন, করোনাকালেও আমাদের ক্রেতাদের উপস্থিতি বেশ ভালো। গ্রাহকদের আস্থার কারণেই আমরা অন্যদের চেয়ে আলাদা ও এগিয়ে।

২০১৬ সালে মাল্টিপ্ল্যান সেন্টারেই যাত্রা শুরু করে টেকল্যান্ড। একজন কর্মচারীসহ তিন জন জনবল দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির শুরু হলেও, গত ৫ বছরে প্রতিষ্ঠানটির পরিধি বেড়েছে কয়েকশ’ গুণ। বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটির দুই শাখায় ৫৩জন কর্মচারী কাজ করছেন। ২০২২ সালের শুরুতে ঢাকা ছাড়িয়ে চট্টগ্রামে নতুন শাখা চালু করবে প্রতিষ্ঠানটি।

অল্প সময়ে এমন সাফল্যের রহস্য কী? প্রশ্নের জবাবে মো. রাকিবুল হুদা মজুমদার বলেন, প্রতিষ্ঠানটির শুরু থেকেই আমরা গ্রাহকদের সবচেয়ে ভালো পণ্যটিই দেওয়ার চেষ্টা করেছি। এতে অসংখ্য গ্রাহকের আস্থা অর্জন করতে পেরেছি। আমাদের পুরনো গ্রাহকরাই নতুন গ্রাহক সৃষ্টি করছেন। এভাবে আমাদের প্রতিষ্ঠানের পরিসর দিন দিন বাড়ছে।

প্রতিষ্ঠানটি মূলত কম্পিউটার হার্ডওয়্যার বা কম্পিউটার যন্ত্রাংশসামগ্রী বিক্রি করে থাকে। বিশ্বের প্রায় ১০০টি ব্র্যান্ডের  মনিটর, মাউস, কেসিং, মাদারবোর্ড, রম, সিডি, ডিভিডিসহ ৫০০ ধরনের পণ্য বিক্রি করে থাকেন তারা। এমনকি বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার সেবাও দিয়ে থাকে প্রতিষ্ঠানটি। এরই মধ্যে বিশ্ববিখ্যাত ব্র্যান্ড স্যামসাংয়ের প্লাটিনাম, এইচপি, ডেল-এর সিলভার ও আসুস-এর গোল্ড পার্টনারশীপ অর্জন করেছে টেকল্যান্ড।

করোনা মহামারির আগেই প্রতিষ্ঠানটি অনলাইনে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। ২০২০ সালে মার্চে ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব)-এর সদস্যপদ পেয়েছে ‘টেকল্যান্ড বিডি’। ই-কমার্সে টেকল্যান্ড বিডি উদীয়মান হলেও, বর্তমানে প্রতিমাসে ৩ হাজারের বেশি অর্ডার পেয়ে থাকে প্রতিষ্ঠানটি।

রাকিবুল হুদা মজুমদার বলেন, আমাদের ই-কমার্সের পুরো সেটআপ আলাদা। সারাদেশের গ্রাহকদের ২৪ ঘণ্টা সেবা দিতে আলাদা একটা টিম রয়েছে। ইন্টারনেট হচ্ছে মৌলিক চাহিদা; আর এই চাহিদা সবার কাছে পৌঁছে দেওয়ার কাজটাই করছি আমরা।

প্রতিষ্ঠার ৫ বছরের মধ্যে বেশ কয়েকটি অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে প্রতিষ্ঠাটি। এর অন্যতম হলো- এমএসআই চ্যাম্পিয়ন ২০১৯ (এমএসআই ইনকরপোরেশন), সেরা উদীয়মান পার্টনার ২০১৯ (ফ্লোরা লিমিটেড), আসুস মোস্ট ভ্যালুয়েবল পার্টনার ২০২০ এবং লজিটেক বেস্ট পার্টনার ইন গেমিং সেগমেন্ট ২০২১ (লজিটেক সুইজারল্যান্ড)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *