Thursday, November 14, 2019
Home > আন্তর্জাতিক > ক্যারি লাম বন্দি প্রত্যর্পণ বিল বাতিলের ঘোষণা দিলেন

ক্যারি লাম বন্দি প্রত্যর্পণ বিল বাতিলের ঘোষণা দিলেন

অবশেষে হংকংয়ের রাজনীতি তোলপার করা সেই বিতর্কিত ‘বন্দি প্রত্যর্পণ’ বিল বাতিলের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন চীনশাসিত অঞ্চলটির নেত্রী ক্যারি লাম। দীর্ঘ তিন মাস ধরে চলা তীব্র প্রতিবাদ বিক্ষোভের মুখে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হলো।

বুধবার এক টেলিভিশন ভাষণে ক্যারি লাম এই বিলটি বাতিলের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, জনগণের দাবির কথা বিবেচনা করে সরকার বন্দি প্রত্যর্পণ বিল বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

এছাড়া চলতি মাস থেকে সরকার সাধারণ জনগণের বিভিন্ন দাবি ও অসুবিধার কথা শোনার জন্য তাদের সঙ্গে সরাসরি আলোচনা শুরু করবে বলেও জানান তিনি। 

বিচারের মুখোমুখি করার জন্য হংকংয়ের নাগরিকদের চীনের মূলভূখণ্ডে প্রত্যর্পণের সুযোগ রেখে প্রস্তাবিত বন্দি প্রত্যর্পণ বিলটি তৈরি করা হয়েছিলো। তবে বিলটি বাতিলের দাবিতে জুন থেকে হংকংয়ে টানা আন্দোলন শুরু হয় যা এক পর্যায়ে সরকার বিরোধী বিক্ষোভে রুপ নেয়।

ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে আন্দোলনকারীদের শান্ত করতে লাম প্রথমে প্রস্তাবিত বিলকে ‘মৃত’ ঘোষণা করেন। কিন্তু আন্দোলনকারীরা ওই বিল সম্পূর্ণ বাতিলের দাবি জানিয়ে ব্যাপক প্রতিবাদ-বিক্ষোভ অব্যাহত রাখে। তিন মাসের এ বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত এক হাজার ১৮৩ জনকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

বেইজিং এ বিক্ষোভের বিরুদ্ধে বারবার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করলেও সরাসরি কোনো ধরনের হস্তক্ষেপ করেনি; লামের প্রতি অকুণ্ঠ সমর্থনের কথাও ধারাবাহিকভাবে বলেছে তারা।

হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী অবশ্য গত সপ্তাহে ব্যবসায়িক নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকে প্রত্যর্পণ বিলটি উত্থাপন করে ‘অমার্জনীয় সর্বনাশ’ করার কথা স্বীকার করেছিলেন বলে রয়টার্সের অনুসন্ধানে উঠে এসেছিল। সুযোগ থাকলে ক্ষমা চাইতাম ও পদত্যাগ করতাম, ফাঁস হওয়া এক অডিও বার্তায় তার কণ্ঠে এমনটাও শোনা গেছে বলে জানিয়েছে তারা।

বিতর্কিত প্রত্যর্পণ বিলটি প্রত্যাহারের পর বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় অবস্থান অব্যাহত রাখেন কিনা, তাই এখন দেখার বিষয়। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *