Thursday, November 14, 2019
Home > ফিচার > জন্ডিসের লক্ষণ ও চিকিৎসা

জন্ডিসের লক্ষণ ও চিকিৎসা

জন্ডিস আমাদের কাছে অত্যন্ত পরিচিত রোগ। আমাদের চারপাশে অনেকেই এ রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। রোগটিকে গুরুত্বর না ভেবে অনেকেই অবহেলা করে থাকেন। পর্যাপ্ত বিশ্রাম নেন না।

জন্ডিস হলে বিশ্রাম খুব জরুরি। পাশাপাশি নিতে হবে চিকিৎসা। একিউট ভাইরাল হেপাটাইটিস `এ` ও `ই`-এর মাধ্যমে হয়। হেপাটাইটিস `সি`-এর কারণে হয় ক্রনিক ভাইরাল হেপাটাইটিস।

একিউট অবস্থার মূলত কোনো ওষুধ নেই। এ জন্য দরকার বিশ্রাম। সঙ্গে বেশি করে পানি পান এবং শাকসবজি খেতে হবে।

আর কিছু ওষুধ আছে, যেগুলো পেট পরিস্কার রাখতে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী খেতে হবে। ক্রনিক ভাইরাল হেপাটাইটিস থেকে জটিল অবস্থা তৈরি হয়। সেখান থেকে সিরোসিস ও লিভার ক্যান্সার হতে পারে। তাই শুরুতেই পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিশ্চিত হতে হবে রোগীর রক্ত এইচবিএসএজি পজিটিভ কি-না।

শরীরে রোগটি না থাকলে ভ্যাকসিনেশন দিতে বলা হয়। যার মোট ডোজ চারটি। প্রথম ডোজের এক মাস পর দ্বিতীয় ডোজ, তৃতীয় ডোজ আরও এক মাস পরে আর চার নম্বর ডোজটি ছয় মাস পরে দিতে হয়।

পাঁচ বছর পর একটি বুস্টার ডোজ নিতে হয়। হেপাটাইটিসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা না গেলে তা ভয়াবহ আকার ধারণ করবে। যেসব কারণে এ রোগ হয়, সেগুলো থেকে নিজেদের দূরে রাখতে হবে। সর্বোপরি চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা নিন, ভালো থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *