Friday, October 30, 2020
Home > আন্তর্জাতিক > মার্কিন সিনেটরের দাবি ইসরায়েলকে আর্থিক সহায়তা বন্ধের

মার্কিন সিনেটরের দাবি ইসরায়েলকে আর্থিক সহায়তা বন্ধের

ইসরায়েলকে দেয়া মার্কিন আর্থিক সহায়তা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রভাবশালী সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। সম্প্রতি মার্কিন দুই মুসলিম কংগ্রেসওম্যান ইলহান ওমর ও রাশিদা তালিবকে ইসরায়েলে প্রবেশের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করায় এই দাবি তোলেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম এনবিসি টেলিভিশনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে স্যান্ডার্স বলেন, ইলহান ওমর ও রাশিদা তালিবকে ইসরায়েলে প্রবেশ করতে দেয়া না হলে দেশটিকে দেওয়া মার্কিন সাহায্য অচিরেই বন্ধ করে দিতে হবে। 

২০২০ সালে অনুষ্ঠিতব্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন বার্নি স্যান্ডার্স। ২০১৬ সালের নির্বাচনেও প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন লাভে হিলারি ক্লিনটনের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন তিনি।

সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এটি অত্যন্ত অবমাননাকর বিষয় যে, মার্কিন কংগ্রেসের একজন সদস্য এমন একটি ভূখণ্ডে যেতে পারবেন না যেটিকে আমরা শত শত কোটি ডলার সাহায্য দেই। ইসরায়েল যদি কংগ্রেসওম্যানদের প্রস্তাবিত সফরের অনুমতি না দেয় তাহলে তেল আবিবকে অর্থ সহায়তা দেওয়া বন্ধ করে দিতে হবে।

গত বৃহস্পতিবার  ইসরায়েল ঘোষণা করে, মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্র্যাট দলীয় সদস্য ইলহান ওমর ও রাশিদা তালিবকে ইসরায়েলের দখলকৃত ভূখণ্ডে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না। কেননা ইতোপূর্বে তারা ফিলিস্তিনের ওপর ইসরায়েলি দখলদারিত্বের সমালোচনা করেছেন।

এ নিয়ে এই প্রথমবারের মতো কোনও মার্কিন কংগ্রেস সদস্যকে প্রবেশাধিকার দেওয়া থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিলো ইসরায়েল। এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ইলহান ওমর ও রাশিদা তালিব-কে ইসরায়েল সফরের অনুমতি না দিতে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর প্রতি আহ্বান জানান। ট্রাম্পের ওই আহ্বানেরও নিন্দা জানান সিনেটর বার্নি স্যান্ডার্স। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *