Sunday, June 16, 2024
Home > ফেনীর খবর > ছাগলনাইয়ায় অটোরিকশার সিরিয়াল নিয়ে বিরোধ লাইনম্যানকে পিটিয়ে হত্যা

ছাগলনাইয়ায় অটোরিকশার সিরিয়াল নিয়ে বিরোধ লাইনম্যানকে পিটিয়ে হত্যা

সিএনজি অটোরিকশার সিরিয়াল দেয়াকে কেন্দ্র করে ফেনীর ছাগলনাইয়ায় মোঃ হারুন (৫৫) নামে এক লাইনম্যানকে পিটিয়ে হত্যা করেছে এক সিএনজি চালক।রোববার দুপুর ২ টা ২০ মিনিটের দিকে শহরের মৌবন হোটেলের সামনে এ ঘটনা ঘটে।ঘটনার পরপরই পুলিশ হত্যাকারী সিএনজি চালক বেলাল হোসেনকে গ্রেফতার করেছে।নিহত লাইনম্যান মোঃ হারুনের বাড়ি পশ্চিম ছাগলনাইয়া গ্রামের হাজী পাড়ায়। তিনি আবুল হোসেনের ছেলে। গ্রেফতার বেলাল হোসেনের বাড়ি নোয়াখালীর সুধারাম থানায়। সে ধর্মপুর গ্রামের সিরাজুল হকের ছেলে। ছাগলনাইয়ায় তিনি ভাড়া বাসায় থাকতেন। লাইনম্যান খুনের ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন সিএনজি অটোরিকশা চালকরা।

ছাগলনাইয়া থানার ওসি সুদ্বীপ রায় পলাশ জানান, ফেনীগামী সিএনজি অটোরিকশার ছাগলনাইয়া স্ট্যান্ডে লাইনম্যানের দায়িত্বে ছিলেন মোঃ হারুন। রোববার দুপুর সোয়া ২ টার দিকে সিএনজি অটোরিকশার সিরিয়াল আগে পরে দেয়াকে কেন্দ্র করে লাইনম্যান হারুনের সঙ্গে তর্কে জড়ান সিএনজি চালক বেলাল হোসেন। তর্কাতর্কির একপর্যায়ে বেলাল সিএনজি অটোরিকশা থেকে লাঠি নিয়ে হারুনকে পেটাতে থাকেন। এসময় বেলালের ছেলে সিএনজি চালক বাপ্পীও ঝগড়ায় লিপ্ত হয়।প্রত্যক্ষদর্শীরা এগিয়ে এসে হারুনকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ছাগলনাইয়া সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যান। অবস্থার অবনতি দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে ফেনীতে পাঠান। ফেনী সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, তিনি আগেই মারা গেছেন। ওসি জানান, খবর পেয়ে পৌরসভা গেটের সামনে থেকে বেলা ৩ টার দিকে বেলাল হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। নিহতের স্ত্রী আরিফা বেগম জানান, সিএনজি চালক বেলাল সব সময় সিরিয়াল নিয়ে তার স্বামীর সঙ্গে ঝগড়াবিবাদ করতেন। টাকা দিতে চাইতেন না। আজকেও (রোববার) হয়তো সিরিয়াল নিয়ে ঝগড়া করে তাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে বেলাল। তিনি তার স্বামীর খুনিদের ফাঁসি দাবি করেছেন।নিহত হারুনের এক ছেলে এক মেয়ে রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *