Sunday, July 3, 2022
Home > ফিচার > হার্ট এটাকের ৭ গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ যা আমরা সব সময় এড়িয়ে যাই

হার্ট এটাকের ৭ গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ যা আমরা সব সময় এড়িয়ে যাই

প্রতি বছর লক্ষ লক্ষ লোক হার্ট এটাকে আক্রান্ত হন। অনেকের হয় অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু। হার্ট এটাকের রয়েছে অনেক ধরণের লক্ষণ। তবে এমন কিছু লক্ষণ রয়েছে যেগুলো খুবই ঝুঁকিপূর্ণ কিন্তু আমরা এগুলো নিয়ে চিন্তিত হই না বা পাত্তা দেই না।

১. অবসাদ বা ক্লান্তি
মহিলা হার্ট এটাকের রোগীদের মধ্যে এই লক্ষণটি অনেক বেশি দেখা যায়। অধিকাংশ হার্ট এটাক রোগী বলেন, তারা খুব ক্লান্ত অনুভব করতেন এবং দৈনন্দিন কাজকর্ম করতে বেশ অনীহা বোধ করতেন। তাই নিয়মিত খাওয়াদাওয়া করার পরও যদি ক্লান্তি আপনার পিছু না ছাড়ে, ব্যাপারটিকে অবহেলা না করে আজই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

২. পিঠ, হাত ও বুকে ব্যাথা অনুভব করা
যখন কোনো ধমনীতে ব্লক হয় তখন হৃদপিণ্ডের পেশিতে যথাযথ রক্ত ও অক্সিজেন পৌঁছাতে পারে না। হৃদপেশি গুলো তখন মস্তিষ্কে ব্যাথার সংকেত পাঠায়। কিন্তু অনেক সময়ই আমাদের মস্তিষ্ক এই সংকেতকে পিঠ, হাতের ব্যাথার সাথে গুলিয়ে ফেলায় হৃদপিণ্ডে ব্যাথা না হয়ে এসব স্থানে অযথা ব্যাথা হয়।যেহেতু হার্ট এটাক বলতে আমারা শুধু বুকে ব্যাথাকেই বুঝি, তাই এসব ব্যাথাকে এড়িয়ে যাই, যা একেবারেই উচিৎ নয়।

৩। হঠাৎ শ্বাস প্রশ্বাসে সমস্যা
বিশেষ করে মহিলারা হয়তো অনেক সময় লক্ষ্য করতে পরেন , বাজারের ব্যাগ টানার পর অথবা সিঁড়ী বেয়ে ওঠার পর শ্বাস নিতে পারছেন না বা শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে । একটু পরেই ঠিক হয়ে যাওয়ায় আমরা কেউই হয়তো সমস্যাটি পাত্তা দেই না। কিন্তু সামান্য পরিশ্রমেই শ্বাস-প্রশ্বাসে সমস্যা কিন্তু হতে পারে হার্ট এটাকের একটি লক্ষণ !

৪। বুক জ্বালা পোড়া করা এবং ঢেঁকুর তোলা
যদি তৈলাক্ত কিছু খাওয়ার পরে বুক জ্বালা পোড়া করে , তবে চিন্তার কিছু নেই। কিন্তু মাঝেই মাঝেই যদি কারণ ছাড়াই এমন হয়, বা হঠাৎ এমন সমস্যা শুরু হয়, তবে অবশ্যই তা চিন্তার কারণ । হতে পারে এটি এনজাইনার লক্ষণ এবং এ থেকেই হতে পারে বড় কোনো হার্ট এটাক। তাই গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা ভেবে অবহেলা না করে এমন সমস্যা থাকলে আজই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

৫। পাকস্থলীর সমস্যা
হার্ট এটাকের একটি লক্ষণ হতে পারে পাকস্থলীর নানা সমস্যা, বমি, বমিভাব, গ্যাস্ট্রিক-অন্ত্রের অতিরিক্ত সমস্যা – এগুলো কখনোই এড়িয়ে যাওয়া উচিৎ নয়।

৬। গলা, ঘাড় ও চোয়ালে অস্বস্তি
ঘাড়, চোয়ালে হঠাত টান অনুভব করা হার্ট এটাকের একটি লক্ষণ হতে পারে, ডায়বেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে ব্যাপারটি বেশি হয়।

৭। কি যেন ঠিক নেই !
সবকিছু যেন ঠিকঠাক যাচ্ছে না- সম্ভাব্য হার্ট এটাকের আগে এমন মনে হতে পারে। সবকিছুতেই কেমন যেন অস্বস্তি মনে হতে থাকবে । আপনি বুঝতে পারবেন না , কিন্তু বারবার মওনে হতে থাকবে, কি যেন একটা ঠিক নেই!

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *